ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
553
চান্দিনায় সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে মৎস্য চাষ!
Published : Monday, 16 September, 2019 at 12:00 AM, Update: 16.09.2019 2:02:04 AM
চান্দিনায় সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে মৎস্য চাষ!রণবীর ঘোষ কিংকর: কুমিল্লার চান্দিনায় সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে মৎস্য চাষ করছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এক নেতা। উপজেলার বাড়েরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদ্য বিলুপ্ত হওয়া কমিটির সভাপতি রওশন আলী ওই ইউনিয়নের নরসিংহপুর ব্রীজ থেকে বাড়েরা বাজার পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার খালে বাঁধ দিয়ে প্রায় এক বছর যাবৎ মৎস্য চাষ করে চলছেন।
এতে প্রাকৃতিক মাছের বংশ বিস্তার হৃাস পাচ্ছে। দেশীয় প্রজাতির মাছের অবাধ চলাচলে বাঁধাগ্রস্থ হচ্ছে। অপরদিকে বাংলার চিরচেনা ঐতিহ্য খালে ভেসাল জালে (ভেল জাল) মাছ ধরা মৎস্য জীবিদের জালে মিলছে কোন মাছ। বর্ষার ভরা মৌসুমেও তারা মাছ শিকার করতে না পেরে উচিঁয়ে রেখেছেন তাদের জাল।
ওই খালের দুই পাশে নেট ও বাঁশের বেড়া দিয়ে চাষকৃত মাছের সুরক্ষায় দেশিয় প্রজাতির কাঁটা জাতীয় ক্ষুদ্রাকৃতির মাছগুলো ধ্বংষ করতে ছিটানো হচ্ছে নানা প্রকার ওষুধ। এতে বাড়েরা-নরসিংহপুর খালে প্রাকৃতিক মাছ বিলুপ্তির পথে। সরকারি খালে বেড়া দিয়ে মাছ চাষের এমন ঘটনা কেউ এর আগে দেখেনি বলে মন্তব্য করেন এলাকাবাসী।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে এলাকার একাধিক বাসিন্দা জানান, বাড়েরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি রওশন আলী প্রায় ১১ বছর যাবৎ ওই ইউনিয়নের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। গত সপ্তাহে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে নতুন কমিটি গঠন হওয়ায় তিনি সাবেক হন। প্রায় এক বছর যাবৎ তিনি খালের দুই পাশে বেড়া ও উপরে নেট দিয়ে  মাছ চাষ করছেন। মাচা দিয়ে সকাল বিকাল মাছের খাবার ছিটাচ্ছেন। মনে হচ্ছে যেন তার নিজস্ব মৎস্য প্রজেক্ট।
তারা আরও জানান, আগে খালের পানি সেচ করে আশ-পাশের জমিতে চাষাবাদ করা হতো। এখন ওই খালে কেউ পানি সেচ করতে পারে না।
এ ব্যাপারে বাড়েরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মৎস্য চাষী রওশন আলী’র সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি বাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. খোরশেদ আলম থেকে অনুমতি নিয়ে খালে মাছ চাষ করেছি।
তবে বাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. খোরশেদ আলম জানান, খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষের অনুমতি কোন চেয়ারম্যান দিতে পারে না। আমি দিবো কিভাবে? খালে বাঁধ দিয়ে যখন তিনি মাছ চাষ শুরু করেছেন তখন ওই খালে ভেল দিয়ে মাছ শিকারী কয়েকজন এসে বিষয়টি আমাকে জানান। তখন আমি ওনাকে নিষেধ করেছি। কিন্তু তিনি আমার নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ চাষ করে চলছেন।
চেয়ারম্যানের এমন বক্তব্যে রওশন আলী চেয়ারম্যানের অনুমতির কথা থেকে সরে গিয়ে বলেন, খালে আমি বাঁধ দেইনি। নেট ও বাঁশ দিয়ে কিছু অংশে মাছ চাষ করেছি। কিন্তু খালের পানিতে মাছ হয় না। সব মাছ মরে যাচ্ছে। আর চাষ করবো না। 
এ ব্যাপারে চান্দিনা উপজেলা সহকারি কমিশনার (এসি ল্যান্ড) নাঈমা ইসলাম জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। সরেজমিন তদন্ত করে শীঘ্রই যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।







© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};