ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
224
বাংলাদেশের ক্যাটফিশ জাতীয় মাছ যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরানোর নির্দেশ
Published : Wednesday, 9 October, 2019 at 7:22 PM
 বাংলাদেশের ক্যাটফিশ জাতীয় মাছ যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরানোর নির্দেশযুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের ঘরে ফ্রিজে রাখা বোয়াল পাবদা মাগুর ও শিং মাছ ফেলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে ইউনাইটেড স্টেটস ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচারের অধীন ফুড সেফটি অ্যান্ড ইন্সপেকশন সার্ভিস (এফএসআইএস)। এফএসআইএস বলছে, যারা ইতোমধ্যে এসব মাছ কিনেছেন তারা যেন এ মাছগুলো না খান। এগুলো হয় ফেলা দেয়া উচিত অথবা যেখান থেকে কেনা হয়েছে সেখানে ফিরিয়ে দেয়া উচিত। বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আমদানিকৃত এসব মাছ রফতানির উপযুক্ত নয় বলে জানিয়েছে এফএসআইএসের পরিদর্শন বিভাগ।

নিউইয়র্কের বাজার থেকে ৭৬ হাজার পাউন্ড আমদানি নিষিদ্ধ মাছ তুলে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয় গত জুলাই মাসে। প্রিমিয়াম ফুডসের মালিকানাধীন, শাহজালাল ব্র্যান্ডের প্যাকেটে করে বাংলাদেশ এবং মিয়ানমার থেকে আমদানি করা এসব মাছ নিউইয়র্ক এবং আশপাশের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বিক্রি করা হতো।

প্রিমিয়াম ফুডস মিথ্যা তথ্য দিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার থেকে আমদানি করা ৭৬ হাজার পাউন্ড ফ্রোজেন মাছ শাহজালাল ব্র্যান্ড নামে নিউইয়র্ক ও তার আশপাশে সরবরাহ করে আসছিল। গত ২৯ জুলাই নিউইয়র্ক পোস্টে শাহজালাল ব্র্যান্ডের ফ্রোজেন মাছের আমদানি নিষিদ্ধের খবর প্রকাশিত হলে প্রবাসীদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

মূলত ক্যাটফিশ জাতীয় মাছ, যেমন-বোয়াল, পাবদা, আইড়, বাতাশী, মাগুরসহ আঁশবিহীন মাছগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে নিষিদ্ধ করে তাদের কৃষি দফতরের খাদ্য নিরাপত্তা বিভাগ।

বাংলাদেশ থেকে আমদানিকৃত বিপুলসংখ্যক মাগুর প্রজাতির মাছ ইতোমধ্যে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির খাদ্য নিরাপত্তা সংস্থার (এফএসআইএস) সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে আমদানিকৃত ৪০ হাজার পাউন্ড মাছের ব্যাপারে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। তবে এর বেশিরভাগই বাংলাদেশ থেকে কেনা হয়েছিল। এ নিয়ে এফএসআইএসের তরফে গত জুলাই থেকে এ পর্যন্ত মোট এক লাখ ৭১ হাজার পাউন্ডেরও বেশি এ প্রজাতির মাছের ব্যাপারে নেতিবাচক সিদ্ধান্ত এলো।

এফএসআইএস থেকে বলা হয়েছে, মাগুর বা ক্যাটফিশ জাতীয় মাছ রফতানির অনুমোদন নেই বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের। এই দুই দেশ থেকে গত বছরের ২৬ মার্চ থেকে চলতি বছরের ৮ মার্চের মাছগুলো আমদানি করা হয়। পরে খুচরা বিক্রির জন্য এসব মাছের চালান গেছে কলোরাডো, কানেক্টিকাট, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, মিশিগান, নিউ জার্সিসহ নিউইয়র্কের প্রবাসী বাংলাদেশিদের গ্রোসারিতে।

তবে এসব নিষিদ্ধ মাছের বিক্রি বন্ধ করতে কিছুদিন ধরে বিভিন্ন গ্রোসারিতে হানা দিচ্ছে ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচারাল ফুড সেফটি অ্যান্ড ইন্সপেকশন সার্ভিসেস। ফলে যেসব গ্রোসারির মালিকরা প্রিমিয়াম ফুড ইউএসএর কাছ থেকে শাহজালাল ব্রান্ডের মাছ কিনেছেন, তারা মাছ বিক্রি করতে না পেরে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

বাংলাদেশ ও মিয়ানমারে ক্যাটফিশ জাতীয় এসব মাছ চাষের সময় এক ধরনের ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। যদি ফ্রোজেন করা হয় তাহলে এসব মাছ মানবদেহের জন্য খুবই ক্ষতিকর। বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে যেহেতু ফ্রোজেন করা ছাড়া মাছ আমদানির কোনো সুযোগ নেই, তাই ২০১৮ সালের শুরুতে এসব মাছ আমদানি নিষিদ্ধ করে ইউএসডিএ।

আমদানিকৃত মাগুর প্রজাতির এসব মাছ প্রত্যাহারের নির্দেশ দেয়ায় মূলত ক্ষতিগ্রস্ত হবে হোলসেল চেইন প্রিমিয়াম ফুড ইউএসএ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশি-আমেরিকান মালিকানাধীন এ প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি মাছ, সবজি ও স্ন্যাক্সের একটি শীর্ষস্থানীয় পরিবেশক ও পাইকারি বিক্রেতা। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি সংস্থাটি বলছে, এসব মাছ পুনরায় পরিদর্শনের জন্য হাজির করা হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি অধ্যুষিত প্রায় ২০টি অঙ্গরাজ্যের খুচরা বিক্রেতাদের কাছে এসব সরবরাহ করেছে প্রিমিয়াম ফুডস ইউএসএ। এখন এসব মাছ প্রত্যাহারের নোটিশ পেয়ে প্রতিষ্ঠানটি প্রক্রিয়া শুরু করলেও এফএসআইএস আশঙ্কা করছে, এ মাছগুলো এখনও ভোক্তাদের ফ্রিজে রয়ে গেছে। তাই এসব মাছ ফেলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে এফএসআইএস।





© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};