ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
406
মত প্রকাশের স্বাধীনতা
Published : Thursday, 10 October, 2019 at 12:00 AM
মত প্রকাশের স্বাধীনতামেহেরুন্নেছা ||
লেখক হুমায়ূন আজাদ ২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি একুশে বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছিলেন। পরবর্তীকালে জার্মানির মিউনিখে ঐ বছর ১১ই আগস্ট রাতে একটি পার্টি থেকে প্রত্যাবর্তনের পর আবাসস্থলে আকস্মিকভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তিনি ছিলেন একজন প্রথাবিরোধী এবং বহুমাত্রিক মননশীল লেখক। তার অদম্য লেখনীর মাধ্যমে তিনি রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে আক্রমণ করতেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি হত্যা প্রচেষ্টার শিকার হন।
ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার রাজধানীর মিরপুরে একই কায়দায় খুন হন ২০১৩ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি।
২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি একুশে বইমেলা থেকে বের হওয়ার সময় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা অভিজিৎ রায়কে কুপিয়ে হত্যা করেন। এ সময় তার স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যাও আহত হন। অভিজিৎ ছিলেন বিজ্ঞানমনষ্ক লেখক এবং ব্লগার।
গত ৭ অক্টোবর, ২০১৯ বুয়েটের ছাত্র আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করলো ছাত্রলীগের নেতারা। এক্ষেত্রেও আবরারকে তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে ভিন্নমত প্রকাশের কারণে হত্যার শিকার হতে হলো। আবরারের প্রোফাইলে নামের পাশে নিজেকে 'মুজাহিদ' পরিচয় দেয়া আছে।
তার টাইম লাইনে বিভিন্ন সময়ে প্রকাশিত স্ট্যাটাস হতে তাকে শিবির সন্দেহ করা হয়েছিলো। যেমন- ‘এই ছেলে-মেয়েগুলা জানে না তারা কি অসাধ্য কাজ করেছে। শহীদ মিনারে দাঁড়িয়ে তাকবির ধ্বনি!
কোন ইসলামপন্থী কাউকে শহীদ মিনারের আঙিনায় দেখলেই তেড়ে আসা মুখোশধারী নাস্তিকদের উপেক্ষা  করে এই ধ্বনি বাংলার জন্যও মাইলফলক।’ (৯ আগস্ট, ২০১৯, আবরার ফাহাদের টাইম লাইন থেকে সংগৃহীত)।
আবরারের এই স্ট্যাটাস একজন মেধাবী ছাত্র হিসেবে শহীদ মিনারের ভাবার্থ ও তাৎপর্যের সাথে কোনোমতেই যায়না। এক্ষেত্রে আবরারের প্রতিক্রিয়াশীল মনোভাবের কথা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। শহীদ মিনার ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলে। আবরারের এই স্ট্যাটাসে আবরারের রাজনৈতিক মতাদর্শ পুরোপুরি ফুটে উঠেছে। তাছাড়া আবরারের টাইম লাইনে ভারত বিদ্বেষী মনোভাব এবং হিন্দু বিদ্বেষী মনোভাব  প্রকাশ পেয়েছে যা কিনা একটা নির্দিষ্ট রাজনেতিক দলের আদর্শের সাথে অন্ত্যমিলের জানান দেয়।
হুমায়ুন আজাদ, রাজীব, অভিজিৎ এবং সর্বশেষ আবরার...এরা তাঁদের স্বাধীন মত প্রকাশের জন্যই নির্মমভাবে হত্যার শিকার হলো।
কথা হচ্ছে হুমায়ুন আজাদ, রাজীব কিংবা অভিজিত কে যখন কোপানো হলো তখন যেমন একটা গোষ্ঠী মৌন থাকলো কিংবা মনে মনে উল্লসিত হয়েছিলো; ঠিক এখন আবার একটা গোষ্ঠী সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আবরারের জন্য দুঃখ প্রকাশের পাশাপাশি   ভারত বিদ্বেষের প্রথম শহীদ বলছে। বুয়েটে যখন আরিফ রায়হান দ্বীপকে প্রতিক্রিয়াশীল চক্র হত্যা করলো তখন কিন্তু চারদিকে এতো শোকের মাতম চোখে পড়েনি ;আবরার হত্যায় যেমন চারদিকে শোকের মাতম উঠেছে। তখন হত্যাকারী ছিলো ইসলামপন্থীরা আর এখন হত্যাকারী সেক্যুলারপন্থীরা। উভয়পক্ষই মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে হত্যা করেছে। উভয়পক্ষই আধিপত্য বিস্তারের নেশায় উন্মত্ত হয়ে উঠেছে।
তারপরেও হত্যা-রাহাজানি কখনো কাম্য না হলেও এদেশের প্রেক্ষাপটে এটা সুবিদিত যে, সেক্যুলারপন্থীরা কোপাকুপি, রগকাটা কিংবা জবাইর শিকার হলে আলোড়ন পড়েনা যতটা আলোড়ন হয় ইসলামপন্থীরা হত্যার শিকার হলে। তারমানে এদেশের রাজনৈতিক আকাশে কি আছে তা ভবিষ্যতই নির্ধারণ করবে।
মানুষ যতদিন থাকবে,  সভ্যতা যতদিন থাকবে ততদিন মানুষ তার মত প্রকাশ করেই যাবে। মানুষের বসবাস যেখানে, সেখানে খুব স্বাভাবিকভাবেই রাজনীতির আগমন ঘটবে। রাজনীতির সাথে সুস্থ,   স্বাভাবিক ,যুক্তিসঙ্গত মত প্রকাশকে মানব সমাজ যতদিন সহজভাবে নিতে ব্যর্থ হবে ততদিন মানুষের রাজনৈতিক মুক্তি আসবেনা। একটা সমাজ কিংবা একটা রাষ্ট্র সভ্যতার মাইলফলক হিসেবে দাঁড়াতে পারবে তখন, যখন সেখানকার মানুষ অবলীলায় তার বিজ্ঞানমনষ্ক ও গঠনমূলক সুচিন্তিত মত প্রকাশে স্বাধীন হতে পারবে। সুতরাং রাজনৈতিক সহিংসতা কমিয়ে আনতে হলে মত প্রকাশের স্বাধীনতা দিতে হবে সর্বাগ্রে এবং ভিন্নমতধারীদের মর্যাদা দেয়ার ব্যাপারটিও গুরুত্বের সাথে চর্চা করতে হবে।
লেখক: সহযোগী অধ্যাপক, উদ্ভিদবিজ্ঞান।
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ।
কুমিল্লা।






© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};