ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেই
Published : Thursday, 2 July, 2020 at 12:00 AM, Update: 02.07.2020 1:58:34 AM, Count : 250
ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আর নেইনিজস্ব প্রতিবেদক।। বিশিষ্ট শিল্পপতি, ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রথম আলোর কর্ণধার লতিফুর রহমান মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার দুপুরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চিওড়ায় নিজ গ্রামের বাড়িতে তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গ্রামের বাড়ির এসিস্টেন্ট ম্যানেজার হুমায়ূন কবীর।
তিনি জানান, গত ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে বিশিষ্ট শিল্পপতি লতিফুর রহমান নিজ বাড়িতে অবস্থান করছেন। বার্ধক্যজনিত কারনে তাঁর অক্সিজেন সিচ্যুরেশন প্রায়ই কমে যেতো। আজও দুপুরে হঠাৎ তাঁর অক্সিজেন সিচ্যুরেশন কমে যায়।
এদিকে বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মরদেহ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আলিফ মেডিক্যাল সার্ভিসেসের একটি লাশবাহি গাড়িতে করে চিওড়া গ্রামের ‘ফারাজ মঞ্জিল’ থেকে তাঁর মরদেহ নিয়ে ঢাকায় স্বজনরা। গুলশানের আজাদ মসজিদে জানাজা শেষে রাতেই বনানী কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।
জানা গেছে, জীবনের শেষ সময়টা বেশির ভাগই গ্রামের বাড়িতে কাটানো লতিফুর রহমান গত ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে অবস্থান করছিলেন। এ সময়টাতে বার্ধক্যজনিত কারণে প্রায়ই তাঁর অক্সিজেন সিচ্যুরেশন কমে যেতো। বুধবার সকালেও হঠাৎ তাঁর অক্সিজেন সিচ্যুরেশন কমে যায়। পরে দুপুর বারোটার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।
এদিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লতিফুর রহমানের মৃত্যুর খবরে তাঁর বাড়ির চারপাশে ভিড় জমাতে থাকেন মানুষজন। তাঁকে শেষবারের জন্য এক নজর দেখতে গ্রামবাসীসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকার নানা শ্রেণিপেশার মানুষ জড়ো হতে থাকেন চিওড়ার ‘ফারাজ মঞ্জিলে’। পরে সন্ধ্যা ৬টার দিকে একটি লাশবাহি গাড়িতে করে তাঁর মরদেহ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন স্বজনরা।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, লতিফুর রহমানের জন্ম জলপাইগুড়িতে, ১৯৪৫ সালের ২৮ আগস্ট। তিনি ঢাকায় থাকতেন গেন্ডারিয়ায়। পড়াশোনার শুরু সেন্ট ফ্রান্সিস স্কুলে। সেখান থেকে ১৯৫৬ সালে শিলংয়ের সেন্ট এডমন্ডস স্কুলে। তারপর কলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে। ১৯৬৫ সালে ঢাকায় ফিরে আসেন লতিফুর রহমান। ঢাকায় এসে ১৯৬৬ সালে ডব্লিউ রহমান জুট মিল ট্রেইনি হিসেবে কাজ শুরু করেন। দেড় বছর কাজ শেখার পর নির্বাহী হিসেবে যোগ দেন। এভাবে কাজ করেন ১৯৭১ সাল পর্যন্ত। ১৯৭২ সালে তিনি সবকিছু নতুন করে শুরু করেছিলেন প্রায় শূন্য হাতে। নিজের হাতে তৈরি বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক গ্রুপ ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান ছিলেন। ট্রান্সকম গ্রুপে এখন কাজ করছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। ব্যবসা পরিচালনার েেত্র নীতি-নৈতিকতা, সুনাম আর সততার স্বীকৃতি হিসেবে ২০১২ সালে তিনি পান বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড, যা ব্যবসা-বাণিজ্যের জগতে নোবেল বলে খ্যাত।
লতিফুর-রহমানলতিফুর রহমান প্রথম আলোর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মিডিয়াস্টার লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন।






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft