ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
চাঁদপুরের বাজার ও দোকানগুলোতেলবণ কিনতে ক্রেতার ভিড়
Published : Wednesday, 20 November, 2019 at 12:00 AM, Count : 35
মানিক দাস : চাঁদপুরে লবণ কিনতে বাজার ও খুচরা দোকানগুলোতে ক্রেতার উপচে পড়া ভিড়। গুজব থেকে রক্ষা পেতে জেলা প্রশাসন গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে তাৎক্ষণিক সভা করেছেন। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। তিনি ক্রেতা সাধারনের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানান, এ ধরনের গুজবে কেউ কান দিবেন না। যদি কোন দোকানী লবণ মজুদ করে অধিক মূল্যে বিক্রিকরে তাহলে প্রশাসনকে জানানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।
জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমানের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, তিনি তার ফেসবুক আইডিতে উল্লেখ করেছেন যদি কেউ লবণ নিয়ে তালবাহানা করে এবং অধিক মূল্যে বিক্রি করে তাহলে তাৎক্ষণিক জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ প্রশাসন, ভোক্তা সংরক্ষণ অধিকার সহ বিভিন্ন দপ্তরকে জানানোর জন্য। তাহলে ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
এদিকে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে লবণের দাম বৃদ্ধি করার চেষ্টা করছে এমনকি দেশের চলমান উন্নত কে বাধাগ্রস্ত করার জন্য অহেতুক লবণের দাম বেড়ে গেছে বলে ফেসবুকে বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালে লবণের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে মর্মে সংবাদ প্রকাশ করেছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। এই সংবাদগুলো বর্তমান সরকারের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য অপচেষ্টা করে যাচ্ছে। লবণ একটি প্যাকেট জাত পণ্য। সকল কোম্পানির লবণ উৎপাদন করছে এবং বিক্রয় করছে। প্রত্যেকটি প্যাকেটের গায়ে উৎপাদন তারিখ মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ এমনকি সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য লেখা রয়েছে স্পষ্টভাবে। তাই প্যাকেটের গায়ে লেখা মূল্য তালিকার চেয়ে বেশি অতিরিক্ত নেওয়া ক্ষমতা নেই কোন দোকানদারের।
চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় জেলা প্রশাসকের বরাবর অথবা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চাঁদপুর জেলা শাখা অথবা কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়োশন অব বাংলাদেশ চাঁদপুর শাখা বরাবর অভিযোগ করতে পারবে ভোক্তারা। গতকাল জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে বিভিন্ন বাজার মনিটরিং করা হয়েছে। একটি সূত্র থেকে জানা যায়, বিকেলে চাঁদপুর সদর উপজেলা মহামায়া বাজারে অভিযান চালানো হয়েছে। এছাড়া বাবুরহাট বাজারেও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজার মনিটরিং করে ২/৩জন ব্যবসায়ীকে অর্থদ- দেয়া হয়েছে। শহরের পাল বাজারের ব্যবসায়ী কোড়ালিয়া রোডের সাহাবাড়ির সুমন জানান, আমরা বিভিন্ন কোম্পানীর লবণ গায়ের মূল্যেই বিক্রি করছি। দুপুরের পর থেকে পুরুষের চেয়ে নারী ক্রেতারা লবণ কেনার জন্য বাজারে ভিড় জমাচ্ছে। আমরা তাদেরকে গুজবে কান না দিতে বলা সত্ত্বেও তারা ৫/১০ প্যাকেট লবন কিনে বাড়িতে মজুদ করছে।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft