ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
কুমিল্লার পেঁয়াজের বাজারে ফের অস্থিরতা
একদিনেই বেড়েছে ৩০ টাকা
Published : Tuesday, 15 September, 2020 at 10:13 PM, Update: 15.09.2020 10:15:53 PM, Count : 375
কুমিল্লার পেঁয়াজের বাজারে ফের অস্থিরতা শাহীন আলম।
আবারও হঠাৎ করে রান্নার অন্যতম অনুসঙ্গ পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারত বাংলাদেশে পেঁয়াজ পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছে। ভারত অতিবৃষ্টি ও বন্যায় ঘাটতি দেখিয়ে ও দেশীয় বাজারে মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছে। তবে কেউ আনুষ্ঠানিক কোনো কারণ বলতে পারছেন না। হঠাৎ করেই  ভারত থেকে পেয়াজ আসা বন্ধের খবরে কুমিল্লাসহ সারা দেশে পাইকারী বাজারে পেঁয়াজের দরদাম নিয়ে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার কুমিল্লার চকবাজার তেরিপট্টি পাইকারী বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পেঁয়াজ নিয়ে আড়ৎদার ও খুচরা বিক্রেতাদের মধ্যে চলছে মূল্য লুকোচুরি।

রাজগঞ্জ বাজারের একাধিক খুচরা বিক্রেতা দৈনিক কুমিল্লার কাগজকে বলেন, দোকানে দোকানে ঘুরেও পেঁয়াজ কেনা যাচ্ছেনা। গত সোমবার পেঁয়াজ কেনেছি  কেজি প্রতি ৪০ থেকে ৪৫ টাকা দরে। কিন্তু  আজ ৬৮ থেকে ৭০ টাকা দরে কিনতে হচ্ছে। বাজারে খুচরা ৭০ থেকে ৭৫ টাকা করে বিক্রি করতে হবে। এছাড়াও এক বস্তা পেঁয়াজের মধ্যে ৮/৯ কেজি পেঁয়াজ পঁচা থাকে।  যেগুলো আরও কম দামে বিক্রি করতে হয়। খুচরা বিক্রেতারা আরও বলেন, কোন পাইকারী দোকানদার পেঁয়াজ ক্রয়ের সঠিক কোন ভাউচার দিচ্ছে না। কারণ খুচরা বাজারের ভাউচার সংগ্রহ করে জেলা প্রশাসন থেকে ভ্রাম্যমান অভিযান চালানো হচ্ছে।

চকবাজার তেরী পট্টি পাইকারী পেঁয়াজ বাজারের মেসার্স শাহ পরান ট্রেডার্স মালিক বলেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ আসা বন্ধ হওয়ায়   হঠাৎ পেঁয়াজের সংকট দেখা দেয়।  এই সুযোগে অনেক খুচরা ক্রেতারা পাইকারী বাজারে বীর করছেন। আমরা পুরানো মাল ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি করছি।  

এদিকে ৬৮ থেকে ৭০ টাকা পেঁয়াজ বিক্রির কথা অস্বীকার করে  পাইকারী বিক্রেতা  মেসার্স ফিরোজ এন্টার প্রাইজ  সত্ত্বাধীকার মো. আবু নাছের বলেন, হঠাৎ ভারত থেকে পেঁয়াজ আসা বন্ধ হওয়ায় বাজারে পেঁয়াজের সংকট সৃষ্টি হয়েছে। আমরা আগের চালানের মাল ৪৫ থেকে ৫০ টাকা দরেই বিক্রি করছি।এরপরও  জেলা প্রশাসন পেঁয়াজের বাজার তদারকি করছেন। বেশি দামে বিক্রি করার কোন উপায় নেই।   

মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লার রাজগঞ্জ বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা রফিকুল ইসলাম বলেন,  তিনি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ক্রয় করছেন ৭০ থেকে ৭৫ টাকা দরে। তিনি আরও বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে বাজারে হৈ  চৈ শুরু হয়েছে। পেঁয়াজের দাম আরও বেঁড়ে যাওয়ার আশঙ্কায় অনেক ক্রেতা বাজারে আগে ভাগেই বাজারে ভীর করছেন। মূলত আমাদের মত সাধারণ ক্রেতাদের কারণেই পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। গতকাল সোমবার পেঁয়াজ ক্রয় করেছি ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় আজ হঠাৎ করে পেঁয়াজ ৭০  থেকে ৭৫ টাকা হয়ে গেছে। আমাদের মত দরিদ্র মানুষ এতো দাম দিয়ে পেঁয়াজ কেনার  করার ক্ষমতা নেই।     

হিলি স্থলবন্দরের কাস্টম হাউসের সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি ভারতে যেসব অঞ্চলে পেঁয়াজ উৎপাদন হতো সেখানে বন্যার কারণে পেঁয়াজের উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। এতে সরবরাহ কমায় ভারতের বাজারেই পেঁয়াজের দামে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যায়। এমন অবস্থায় গত সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ভারত সরকার হিলি কাস্টমসে পণ্যটি রপ্তানি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। সে মোতাবেক পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ থাকবে। এ সংক্রান্ত সরকারি প্রজ্ঞাপন এখনো জারি হয়নি, তবে অচিরেই জারি হবে। পেঁয়াজ আমদানির জন্য যেসব এলসি খোলা রয়েছে এবং টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে, সেগুলোর বিপরীতেও রপ্তানি হবে না। ফলে গতকাল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আসেনি।  

    

 



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft